আজ ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ব্রাদার্স কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্র-এর সমাপনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কৃতি শিক্ষার্থীবৃন্দ।

কম্পিউটার শিখে স্বনির্ভর হচ্ছে সাভারের তরুণ সমাজ ও সর্বস্তরের মানুষ

সুফিয়ান ফরাবী, সাভার থেকে

সাভারের আশুলিয়ায় সরকার অনুমোদিত ব্রাদার্স কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে ২০২১ শিক্ষাবর্ষের কোর্স সমাপনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কৃতি শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রশিক্ষণ বিষয়ক সার্টিফিকেট ও মেধা তালিকায় উত্তীর্ণদের মাঝে ক্রেস্ট বিতরণ করা হয়েছে।

দীর্ঘ ছয় মাস পূর্ব থেকে শুরু হওয়া এই কোর্সের শিক্ষার্থী ছিলেন প্রায় অর্ধশতাধিক। এরমধ্যে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের কর্মসংস্থানের জন্য তৈরি করে আনুষ্ঠানিকভাবে সার্টিফিকেট তুলে দেওয়া হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আন-নূর হেল্পিং হ্যান্ড-এর নির্বাহী পরিচালক মুফতি আনসারুল হক ইমরান। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, আজ বাংলাদেশে বেকার সমস্যা দূরীকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ। তরুণদের অনেকের হাতেই আজ ল্যাপটপ ও কম্পিউটার আছে। কিন্তু এসব প্রযুক্তির যথাযথ প্রয়োগ না করে তারা অপপ্রয়োগে লিপ্ত হচ্ছে। এর কারণ তারা যথাযথ প্রয়োগ সম্পর্কে ওয়াকিবহাল নন। এজন্য কম্পিউটার থাকলেও তারা তা দিয়ে কোন প্রকার উপকার তুলতে পারছে না। আমি ব্রাদার্স কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রকে ধন্যবাদ জানাই যে তারা বেকার সমস্যা দূরীকরণের এই ক্ষেত্রকে বেছে নিয়ে আমাদের সমাজে আইটি সেক্টরে জনশক্তি বৃদ্ধি করছে। আমাদের দেশে দারিদ্র দূরীকরণে প্রশিক্ষিত জনশক্তি হতে পারে অন্যতম হাতিয়ার।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, আল কুরআন গবেষণা ইনস্টিটিউট-এর নির্বাহী পরিচালক মুফতি মুহিব্বুল্লাহ রাহমানি, জনকল্যাণ সোসাইটির পরিচালক মাওলানা মাহমুদুল হাসান শাহেদী, সমাজকর্মী মাওলানা আল-আমীন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ব্রাদার্স কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্র-এর সমাপনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কৃতি শিক্ষার্থীবৃন্দ। ছবি: নূর নিউজ
অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্রাদার্স কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের পরিচালক মাওলানা মুজাহিদুল ইসলাম। তিনি বলেন, কম্পিউটার প্রশিক্ষনের মধ্যমে মেধা ও শ্রম দিয়ে বহির্বিশ্ব থেকে বৈদেশিক মুদ্রা আয়ের বিশাল সোর্স রয়েছে। এ লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠানটি আজ অত্র অঞ্চলে তরুণদের পথ দেখাচ্ছে। এটা আমাদের সকলের জন্য খুশির খবর। ভবিষ্যতে অত্র প্রতিষ্ঠান দারিদ্র মুক্ত, স্বনির্ভর ও ডিজিটাল বাংলাদেশকে সর্বেোচ্চ চূড়ায় নিয়ে যেতে আরো ব্যাপক ভাবে প্রশিক্ষণ দিয়ে যাবে ইনশাআল্লা।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, যারা এখান থেকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ নিয়ে কাজের ময়দানে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তাদের প্রতি আহ্বান থাকবে নিজেরা স্বনির্ভর হওয়ার পাশাপাশি অন্যান্য তরুণদের স্বনির্ভর হওয়ার স্বপ্ন দেখাতে হবে। আমরা সকলে চাইলে একটি দরিদ্র মুক্ত সমাজ এবং সুন্দর সমাজ মানুষদের উপহার দিতে পারি।

পরিশেষে আহলে জান্নাত মহিলা মাদরাসার পরিচালক মাওলানা ইমাদ উদ্দিনের দোয়ার মাধ্যমে সার্টিফিকেট বিতরণ অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই বিভাগের আরও খবর..

ফেসবুকে আমরা

Facebook Pagelike Widget